গোপন কোড না জানলে ভিকি এবং ক্যাটরিনার বিয়েতে প্রবেশাধিকার নেই অতিথিদেরও!

ভিকি কৌশল এবং ক্যাটরিনা কাইফের বিয়ে যেন কোনও গোপন সভা! সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের তথ্য যদি সঠিক হয়, তবে বিভিন্ন নিয়ম মাথায় রেখে প্রবেশাধিকার পাবেন অতিথিরা। বিয়েতে ফোন ব্যবহার করা নিষিদ্ধ। থাকবেন না কোনও সাংবাদিক।

রাজস্থানের বিলাসবহুল প্রাসাদের বাইরে মোতায়েন করা হবে একাধিক পুলিশকর্মীকে। তা ছাড়া থাকবেন নিরাপত্তারক্ষীর দল। এ বারে জানা গেল, গোপন কোড জানলে তবেই তারকা যুগলের বিয়েতে প্রবেশ করতে পারবেন আমন্ত্রিতরা।

গোপন কোড উচ্চারণ না করলে তাকে আর ‘ভিক্যাট’ (ভিকি এবং ক্যাটরিনাকে একসঙ্গে যে নামে ডাকা হয়)-এর বিয়েতে ঢুকতে দেওয়া হবে না। নিয়মাবলির তালিকা এখানেই শেষ নয়। ছবি না তোলার জন্য অতিথিদের একটি চুক্তিতে সই করানো হবে। আমন্ত্রিতদের পরিচয়ও গোপন রাখা হবে বলে শোনা যাচ্ছে। তা ছাড়া কোনও ড্রোন ক্যামেরার ব্যবহার করা হবে না ছবি এবং ভিডিয়ো তোলার জন্য।

তারকা যুগল তাঁদের বিয়ের কথা যতই লুকিয়ে রাখার চেষ্টা করুন না কেন, অনুরাগীদের দৌলতে সেই প্রচেষ্টা জলে। বিভিন্ন ফাঁক ফোকর দিয়ে ভিকি-ক্যাটরিনার বিয়ের তথ্য ছড়িয়ে পড়ছে চার দিকে। সম্প্রতি টুইটারে একটি চিঠির প্রতিলিপির ছবি ঘুরে বেড়াচ্ছে। অনুরাগীদের দাবি, সেটি সওয়াই মাধোপুর জেলা-শাসকের চিঠি। যে চিঠির ছবি প্রকাশ পেয়েছে, তাতে হিন্দি ভাষায় লেখা রয়েছে, ‘অভিনেতা ভিকি কৌশল এবং অভিনেত্রী ক্যাটরিনা কাইফের বিবাহ অনুষ্ঠানের আয়োজনের জন্য শুক্রবার সকালবেলা একটি বৈঠকের বন্দোবস্ত করা হয়েছে।’

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জানা গিয়েছিল, শুক্রবার আইনি বিয়ে সেরে ফেলতে পারেন ভিকি এবং ক্যাটরিনা। কিন্তু সাংবাদিকদের কাছ থেকে সে খবর লুকিয়ে রাখার চেষ্টা করছেন তারকা যুগল।সূত্র-আনন্দবাজার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *