ট্রলারডুবির ৫ দিন পর মা মেয়েসহ ৬ জনের লা’শ উদ্ধার

নারায়ণগঞ্জ বুড়িগঙ্গা নদীতে ট্রলার ডুবির ৫ দিন পর মা মেয়েসহ ৬ জনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় নিখোঁজ রয়েছেন আরো চার জন।রোববার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ফতুল্লার ধর্মগঞ্জ এলাকায় ধলেশ্বরী নদী থেকে লাশ গুলো উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধারকৃত লাশগুলো হল ফতুল্লার চরমধ্যনগর এলাকার সোহেল মিয়ার স্ত্রী জেসমিন আক্তার (৩৫) ও তার বড় মেয়ে তাসমিন আক্তার(১৬), ফতুল্লার চর

বক্তাবলীর রাজু সরদারের কলেজ পড়ুয়া ছেলে সাব্বির আহমেদ(১৮), বক্তাবলীর হাজীপাড়ার আব্দুল জলিলের মেয়ে জোসনা বেগম(৩৩), ফতুল্লার উত্তর গোপাল নগরের রেকমত আলীর ছেলে আব্দুল মোতালেব(৪২), চর বক্তাবলীর মৃত.আক্কাস আলীর ছেলে আওলাদ হোসেন(৩০)।

বক্তাবলী ইউ চেয়ারম্যান সওকত আলী জানান, একই পরিবারের চারজনের মধ্যে মা-মেয়ে দুজনের লাশ পাওয়া গেছে। আরেক শিশু মেয়ে তাসফিয়া (২) ও শিশুপুত্র তামিম (৫) এখনও নিখোঁজ রয়েছে।

তিনি আরো জানান,সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত মোট ৬টি লাশ উদ্ধার করে সদর উপজেলা প্রশাসন তাদের পরিবারের কাছে হস্থান্তর করেছে। এখনো আরো ৪ জনসহ ট্রলারটি নিখোঁজ রয়েছে।

উল্লেখ্য, ৫ জানুয়ারি সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ফতুল্লার ধর্মগঞ্জ ঘাটের কাছে ধলেশ্বরী নদীতে এমভি ফারহান-৬ লঞ্চের ধাক্কায় যাত্রীবোঝাই খেয়া পারাপারের ট্রলার ডুবে যায়। এ সময় অনেকেই সাঁতরে তীরে উঠলেও ১০ জন নিখোঁজ হয়। এ ঘটনার ৫ দিনের মাথায় ৬ জনের লাশ ভেসে উঠেছে। এ ঘটনায় লঞ্চের চালক, মাস্টার ও সুকানীসহ ৩ জনকে পুলিশ গ্রেফতার করে তাদের বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *