ভারতীয় এক মহিলা একটা অজগর সাপ পুষতেন, সাপটাও ওই মহিলাকে অসম্ভব ভালবাসতো,

ভারতীয় এক মহিলা একটা অজগর সাপ পুষতেন,
সাপটাও ওই মহিলাকে অসম্ভব ভালবাসতো,
অজগরটা লম্বায় ৪ মিটার এবং বেশ স্বাস্থ্যবান,
হঠাৎ করেই একদিন আদরের অজগরটি খাওয়া দাওয়া বন্ধ করে দিলো,

এভাবে কয়েক সপ্তাহ চলে গেলো,সাপ কিছুই খায় না,
আদরের সাপের এমন অবস্থায় মহিলা দুশ্চিন্তায় পড়ে গেলেন,
উপায় বুদ্ধি না পেয়ে শেষমেশ সাপটাকে তিনি ডাক্তারের কাছে নিয়ে গেলেন,
ডাক্তার মনযোগ দিয়ে সব শুনে জিজ্ঞেস করলেন,সাপটা কি রাতে আপনার সাথে ঘুমায়,
মহিলা উত্তর দিলেন,হ্যাঁ,

ডাক্তার,ঘুমানোর সময় এটা কি আস্তে আস্তে আপনার কাছে ঘেঁষে,
‘হ্যাঁ’মহিলার উত্তর,
ডাক্তার, ‘তারপর আস্তে আস্তে আপনাকে চারপাশে পেঁচিয়ে ধরে,
মহিলা বিস্মিত হলেন এবং জবাব দিলেন,

তখন চিকিৎসক বললেন,ম্যাডাম, সাপটি আপনাকে জড়িয়ে এবং চারপাশ থেকে পেঁচিয়ে ধরে,কারণ এটা আপনার মাপ নিচ্ছে,নিজেকে প্রস্তুত করছে, আপনাকে আক্রমণ করার জন্য,আর হ্যাঁ,সে খাওয়া দাওয়া বন্ধ করেছে যথেষ্ট জায়গা খালি করতে,যাতে সহজেই আপনাকে হজম করতে পারে,

এই গল্পের একটা মোরাল আছে,আপনার চারপাশে হয়ত এমন অনেকেই আছেন, যাদের আপনি কাছের মানুষ ভাবেন,যাদের দেখে মনে হয় আপনাকে তারা অসম্ভব ভালবাসেন,কিন্তু আপনি জানেন না,আপনার ক্ষতিই তাদের প্রধান উদ্দেশ্য,আমাদের সমাজে এখন এমন সাপের অভাব নাই!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *